ঈদ-উল-ফিতর || শাহাদাৎ হোসেন || কবিতা

 

আবরের আবছায়া ধীরে সরে গেল

পশ্চিমের চাঁদোয়ার বুকে,

স্বচ্ছ নীলিমায়-

অপরূপ রূপালি-স্বপনে

দেখা দিল শওয়ালের চাঁদ।

খুশির সালামে

আনন্দের আবেদনে বরিল নিখিল।

পুণ্য চাঁদে ব্রত উদ্যাপন-

অবসান রমজান

দরুদ-গুঞ্জনে

আলবেদায় ধ্বনিল জাহান।

*

ঈদের আঞ্জাম সারা

প্রভাতের প্রতীক্ষায় জাগে ‘আরেফিন’।

অকস্মাৎ আজানের উদাত্ত আহবানে

উত্তুঙ্গ মিনার-চ‚ড়ে

মোয়াজ্জিন ঘোষিল প্রভাত।

কোলাহল-কলকল আনন্দের রোলে

ভরিল ভুবন,

নরনারী শিশু-বৃদ্ধ-যুবা

রুগ্ন-খঞ্জ-এতিম-আতুর

‘শরাবন তহুরা’র পানপাত্র যেন

নিঃশেষে করিয়া পান

উচ্ছল আনন্দাবেগে চঞ্চল চটুল।

দুঃখ-শোক-দৈন্য-অবসাদ

ধুয়ে মুছে হয়েছে নিঃশেষ

রমজানের দীর্ঘ মাসে সংযমের ব্রত-উপবাসে।

শুচি-শুদ্ধ-কায়মনে

নূতন জীবন-রসে উঠেছে সঞ্জীবি

ঈদের প্রভাতে আজি ফিতরার পুণ্য বিতরণে।

নব বাসে নব বেশে বিচিত্র রঙিন

সুগন্ধি গোলাব মেস্ক আতরের গন্ধে ভরপুর

চোখে মুখে উছল উল্লাস

দলে দলে চলে ঈদগাহে।

আজান-তকবির ওঠে

ধ্বনির তরঙ্গে ছুটে শূন্য বায়ুস্তরে

প্রাণতন্ত্রে একই সুর উদাত্ত ঝংকার

সারা বিশ্ব মুসলিমের।

মুহূর্তেকে মিশে যায়-

আরব্য-মিশর-তুর্ক-ইরান-তাতার

মরক্কো-ভারত-চীন-সিস্তান-কাবুল।

‘কাবা’র মিম্বার হতে

দুনিয়ার দূরান্তের প্রান্ত ঈদগাহে

সমস্বরে মন্দ্রিত আরাব-

রনি ওঠে আল্লাহো আকবর।

মহাকেন্দ্রে মিলনের মহা-মহোৎসব

ভেদ-দ্বন্দ্ব-দ্বিধা নাই রাজেন্দ্র-কাঙালে

সাম্যের বিজয়-তীর্থে-

মৃত্তিকার আস্তরণে নতশির সবে।

ঊর্ধ্বে নীল চাঁদোয়ায়

ফেরেশতার দীপ্ত আঁখি-তারা

হুর-পরী নির্নিমেষ মৌন মহিমায়;-

ধারায় ধারায়-

অলক্ষ্য-আশিস-ধারা

সপ্তস্তর আকাশ বাহিয়া

নেমে আসে আরশের জ্যোতির্লোক হতে।

শুচিস্নাত সে-ধারায়

পরিপূর্ণ নরত্বের দিব্য-মহিমায়

আত্মার অমৃত-লোকে জাগে মুসলমান।

অনন্ত নিখিল-

সেথা তার মর্মের আত্মীয় ;

অন্তহীন বিশ্ব-পরিবারে

অখণ্ড মানব-সত্তা

সে যে সত্য বিরাটের মহা সপ্রকাশ।

দু হাতে বিলায় তাই দুনিয়ার এতিম কাঙালে

পুণ্য চাঁদে ফিত্রার পুণ্য আয়োজন।

*

কোথা মক্কা-মোয়াজ্জেমা মদিনা কোথায়

প্রাণকেন্দ্র এ মহা সাম্যের

কোথা আমি ভারতের প্রান্ততটে ক্ষুদ্র ঈদ্গাহে।

সিন্ধু-মরু-গিরি-দরী-কান্তার-তটিনী

রচিয়াছে ব্যবধান দুর্জয় বিপুল

তবু শুনি বায়ুস্তরে তরঙ্গদোলায়

ভেসে আসে সে উদাত্ত মন্দ্রিত নির্ঘোষ-

সাম্যের দিশারী আমি-আমি মুসলমান

দেশ-কাল-পাত্র মোর সর্ব একাকার-

বহুত্বে একক আমি

আত্মার আত্মীয় মোর দুনিয়া-জাহান!

 

পণ্ডিতপোল

১৩৪৫

 

(শাহাদাৎ হোসেনের ইসলামী কবিতা : আবদুল মান্নান সৈয়দ সম্পাদিত, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, ২০০২ (চতুর্থ সংস্করণ), ৭১-৭৩ পৃষ্ঠা থেকে সংগৃহীত।) 

মতামত
লোডিং...